Categories
রোগ ব্যাধি

রিউমাটয়েড আথ্রাইটিস

রিউমাটয়েড আথ্রাইটিস একটি প্রদাহজনিত ব্যাধি। সাধারণত: পুরুষদের চেয়ে মহিলারা এ রোগে বেশী আক্রান্ত হয়।

রিউমাটয়েড আথ্রাইটিস কি

রিউমাটয়েড আথ্রাইটিস একটি দীর্ঘস্থায়ী প্রদাহযুক্ত অবস্থা যা সাধারণত হাত ও পায়ের ছোট অস্থি সন্ধিগুলোকে আক্রান্ত করে। এর ফলে পা ফুলে ব্যথা করে হাড় ক্ষয় হয়ে যায় অথবা অস্থিসন্ধিতে বিকৃতি ঘটে।

রিউমাটয়েড আথ্রাইটিস  হয়েছে কি করে বুঝবেন

রিউমাটয়েড আথ্রাইটিসের উপসর্গগুলো হঠাৎ দেখা যায় আবার চলেও যায়। রিউমাটয়েড আথ্রাইটিস হলে সাধারণত: যেসব লক্ষণ ও উপসর্গগুলো দেখা দেয়:

  • অস্থি সন্ধিতে ব্যথা করা
  • অস্থি সন্ধি ফুলে যাওয়া
  • অস্থি সন্ধিতে একটু স্পর্শ করলেই ব্যথা লাগা
  • হাত লালচে এবং ফুলে  যাওয়া
  • বাহুর চামড়ার নিচের চাকা চাকা লাগা
  • অবসাদ লাগা
  • সকালে ঘুম থেকে ওঠার পর অস্থিসন্ধিতে জড়তা থাকা যা প্রায় এক ঘন্টা পর্যন্ত থাকতে পারে
  • জ্বর হওয়া
  • ওজন হ্রাস পাওয়া

রিউমাটয়েড আথ্রাইটিসের হলে সাধারণত: প্রথমদিকে হাত, হাতের কব্জি, পায়ের গোড়ালির হাড়ের মধ্যেকার ছোট অস্থি সন্ধিগুলোতে আগে ব্যথা করে।

কখন ডাক্তার দেখাবেন

উপরোক্ত লক্ষণ ও উপসর্গ গুলো আগে দেখা দিলে ডাক্তারের সাথে যোগাযোগ করতে হবে।

কি ধরণের পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রয়োজন হতে পারে

  • শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষা
  • রক্তের পরীক্ষা
  • এক্স-রে

কি ধরণের চিকিৎসা আছে

রোগের ধরণ, মাত্রা এবং রুগীর বয়সের উপর রিউমাটয়েড আথ্রাইটিসের চিকিৎসা নির্ভর করে। এক্ষেত্রে ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায় প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

জীবন-যাপন পদ্ধতি

  • ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ঔষধ সেবন করতে হবে
  • নিয়মিত ব্যায়াম যেমন:সাঁতার কাটা, হাঁটা ইত্যাদি করতে হবে। যদি ব্যায়ামের পর নতুন করে অস্থি সন্ধিতে ব্যথা দেখা যায় তবে ব্যায়াম বাদ দিতে হবে ও চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে হবে
  • ব্যথা কমানোর জন্য ব্যথাযুক্ত জায়গায় গরম অথবা ঠান্ডা পানির প্যাক লাগাতে হবে
  • ব্যথা কমানোর জন্য নিয়মিত ফিজিওথেরাপী করতে হবে
  • সকল প্রকার মানসিক চাপমুক্ত থাকতে হবে

রিডমাটয়েড আথ্রাইটিস হবার কারণ কি ?

দেহের রোগ প্রতিরোধী প্রক্রিয়া (Immune system) যখন কোন কারণে দেহের কলায় (tissues) আক্রমণ করে তখন রিউমাটয়েড আথ্রাইটিস হয়ে থাকে। এর ফলে অস্থিসন্ধিতে সমস্যা হওয়ার পাশাপাশি জ্বর, অবসাদগ্রস্থতা পুরো শরীরকে আক্রান্ত করে।

কাদের রিডমাটয়েড আথ্রাইটিস হবার ঝুঁকি বেশি রয়েছে?

যাদের রিডমাটয়েড আথ্রাইটিস হবার ঝুঁকি বেশি রয়েছে তারা হলেন :

  • মহিলারা
  • এটি যে কোন বয়সেই হতে পারে। তবে সাধারণত ৪০-৬০ বছর বয়সীদের বেশী হয়
  • যাদের রিডমাটয়েড আথ্রাইটিসের পারিবারিক ইতিহাস আছে
  • যারা ধূমপান করেন

রিউমাটয়েড আথ্রাইটিসের ফলে কি জটিলতা দেখা দিতে পারে ?

রিউমাটয়েড আথ্রাইটিসের ফলে সন্ধি আক্রান্ত হয়  এবং দূর্বলতা, শারীরিক বিকৃতি ঘটে ফলে দৈনন্দিন কাজ করতে অসুবিধা হয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *